ঢাকা মঙ্গলবার
১৬ জুলাই ২০২৪
১৭ মার্চ ২০২৪

ফুসফুস ক্যান্সারের লক্ষণ ও করণীয়


ডেস্ক রিপোর্ট
137

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১২:০২:১৪ পিএম
ফুসফুস ক্যান্সারের লক্ষণ ও করণীয় ফাইল-ফটো



মানব দেহের দৈনদিন জীবনে কখনো সুস্থ আবার কখন অসুস্থ,এই নিয়েই জীবন।এরই মধ্যে মরণ ব্যধি একটা রোগ ক্যান্সার,এই রোগ শরীরের যে কোন যায়গায় হতে পারে।তেমনি এই রোগ ফুসফুসেও হতে পারে।

অনেকেরই প্রায়ই সর্দি কাশি হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যায়। সারা বছরই বুকে একটা ব্যথা থাকে। মাঝে মধ্যই ঠান্ডা লেগে যায়। এসব উপসর্গ থাকলে একটু সাবধানে থাকা বেশি প্রয়োজন। এগুলো সামান্য সর্দি কাশির লক্ষণ, কিন্তু আসলে এইসব উপসর্গই ফুসফুসে সংক্রমণের সংকেত দেয়। এমনকি ফুসফুসে ক্যান্সারের সংকেতও হতে পারে।

খুব দ্রুত ফুসফুসে ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়ে। ফুসফুসের ক্যান্সার চিকিৎসার মাধ্যমে সাফল্যের হারও খুব কম। তাই সতর্ক থাকতে হবে । ধূমপানের অভ্যাস নেই, তবুও বুকে ব্যথা হলে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। সব বয়সের নারী-পুরুষের প্রতিই এমন বার্তা দেয় আমেরিকান ক্যানসার সোসাইটি।

প্রায়ই সর্দি-কাশি হচ্ছেঃ

যদি প্রায়ই ঠান্ডা লেগে যাচ্ছে বা প্রায়ই সর্দি-কাশি হচ্ছে তাহলে মনে রাখতে হবে এমনটা হওয়া কিন্তু স্বাভাবিক নয়। যদি প্রায়ই ঠান্ডা লেগে থাকে তবে ফুসফুসে অবশ্যই কোনও সমস্য়া আছে। কাশি হলে যদি কমতে না চায়, তবে এমন প্রবণতা দেখলেও সাবধান। চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

কাঁধে-পিঠে ব্যথাঃ

প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে যদি কাঁধে আর পিঠে খুবই ব্যথা হচ্ছে সেক্ষেত্রে কিন্তু সময় থাকতে থাকতেই সাবধান হন। আসলে শরীরের কোনও অংশে যদি সমস্য়া তৈরি হয় তবে শরীরের অন্য়ান্য় অঙ্গও তা জানান দিতে থাকে। চিকিৎসা পরিভাষায় এই ধরনের ব্যথাকে রেফার্ড পেন বলে।

শ্বাস নিতে সমস্যাঃ

শ্বাস নিতে গেলে যদি খুব কষ্ট হয়, মানে শ্বাস নিতে আপনার যদি সমস্য়া হয়ে থাকে তাহলে তাও অবহেলা করার মতো নয়। ফুসফুস জানান দিচ্ছে- অঙ্গের ভেতরে কোনও সমস্যা আছে। ফুসফুসের আশেপাশে প্রদাহ তৈরি হলে কিন্তু এমন অনেক সময়েই হতে পারে।

অতিরিক্ত ক্লান্তিঃ

শরীরে কোনও বড় অসুখ হলেই কিন্তু শরীরে অতিরিক্ত ক্লান্তি আসে। তাছাড়া ফুসফুসে ক্যান্সার বা কোনও বড় সমস্য়া থাকলে অতিরিক্ত ক্লান্তি আসা স্বাভাবিক। কারণ ফুসফুস পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন শরীরে সরবরাহ করতে পারছে না। তাই শরীরে অতিরিক্ত ক্লান্তি হবেই।

অল্প কাশি হলেও বুকে কফ বসে যাওয়াঃ

কোনও বড় অসুখ হলে বা প্রচণ্ড ঠান্ডা লাগলে অনেক সময় বুকে কফ বসে যায়। কিন্তু যখনই কাশি হয়, তখনই যদি বুকে কফ বসে যায় তাহলে একটু ভাবুন। এই সঙ্কেত ভাল নয়। ফুসফুসে সমস্য়া থাকলে এই ধরনের সমস্য়া তৈরি হতে পারে।


আরও পড়ুন: