ঢাকা মঙ্গলবার
১৬ জুলাই ২০২৪
১৪ জুলাই ২০২৪

পুলিশ ভ্যানে তলোয়ার নিয়ে হামলা


ডেস্ক রিপোর্ট
220

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২২ | ১০:১১:৩৫ এএম
পুলিশ ভ্যানে তলোয়ার নিয়ে হামলা ফাইল-ফটো



দিল্লিতে বান্ধবী শ্রদ্ধা ওয়াকারকে হত্যায় অভিযুক্ত আফতাব আমিন পুনেওয়ালাকে বহনকারী একটি পুলিশ ভ্যানে একদল তরোয়ালধারী ব্যক্তি হামলা চালিয়েছে। সোমবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনায় ঘটে।

সূত্রের বরাত ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে এবং পুনেওয়ালা নিরাপদে আছেন।

সূত্র জানায়, পশ্চিম দিল্লির ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে পুনেওয়ালার দ্বিতীয় পলিগ্রাফ পরীক্ষার পর তাকে পুলিশ ভ্যানে করে জেলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি ভবনের বাইরে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, পুলিশ ভ্যানের সামনে নিজেদের গাড়ি দাঁড় করিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করে ওই ব্যক্তিরা।

এরপর গাড়ি থেকে পাঁচজন বেরিয়ে এসে তলোয়ার নিয়ে ভ্যানটিকে লক্ষ্য করে হামলা করে। সূত্র জানায়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ অস্ত্র বের করে ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি এবং দুই হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন নিগম গুজ্জর ও কুলদীপ ঠাকুর। তারা গুরুগ্রামের বাসিন্দা। তারা হিন্দু সেনার সদস্য বলে জানিয়েছে। বিষয়টি পুলিশ যাচাই করে দেখছে।

এক বিবৃতিতে হিন্দু সেনা জানায়, এই কর্মীরা যা করেছে তা তাদের ব্যক্তিগত অনুভূতি থেকে করেছে। আফতাব কীভাবে একটি হিন্দু মেয়েকে টুকরো টুকরো করে কেটেছে, তা পুরো দেশ দেখেছে। সংগঠনটি এমন কোনো কাজকে সমর্থন করে না, যা ভারতের সংবিধানের পরিপন্থী। আমরা ভারতের আইনে বিশ্বাসী।

পুনেওয়ালা দাবি করেছেন, নিজেদের মধ্যে ঝগড়ার একপর্যায়ে তিনি শ্রদ্ধা ওয়াকারকে হত্যা করেছেন। পরে তিনি মৃতদেহটিকে ৩৫ টুকরা করে ফ্রিজে রেখে দেন এবং দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ফেলে দেন। এরমধ্যে ২০টিরও কম টুকরা উদ্ধার করতে পেরেছে পুলিশ, যেগুলো ডিএনএ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

আদালতেও হত্যার কথা স্বীকার করেছেন আফতাব পুনেওয়ালা।


আরও পড়ুন: